শহরতলীর গোপায়া বাজারে হোটেল কর্মচারীকে অমানষিক নির্যাতন
তারিখ: ১১-জানুয়ারী-২০১৯
আখলাছ আহমেদ প্রিয় ॥

হবিগঞ্জ সদর উপজেলার গোপায়া নুরানী বাজারে আফজাল মিয়া (২৫) নামে নামে এক হোটেল কর্মচারীকে হাত পা বেধে তালাবদ্ধ রুমে মধ্যপযুগী কায়দায় অমানষিক নির্যাতন করেছে হোটেল মালিক সুজন মিয়া। গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এ ব্যাপারে আগামীকাল শনিবার এক বিশাল প্রতিবাদ সভার ডাক দিয়েছে ৪ গ্রামবাসী। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গোপায়া নুরানী বাজারে সুজন মিয়ার হোটেলে প্রায় ৬ মাস ধরে কাজ করে আসছিল সদর উপজেলার সুলতানশী গ্রামের মঞ্জব আলীর পুত্র আফজাল মিয়া (২৫)। গত ৩ মাস ধরে হোটেল মালিক সুজন মিয়া তাকে বেতন না দিলে তাদের মধ্যে বাক-বিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে ৪ দিন পূর্বে আফজাল মিয়া তার বাড়ি সুলতানশীতে চলে যায়। এতে করে হোটেলের মালিক সুজন ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে। এর জের ধরে বুধবার সন্ধ্যায় সুজন তার লোকজনকে নিয়ে ওই এলাকার এক ব্যক্তির সহযোগিতায় আফজালকে তার গ্রামের বাড়ি সুলতানশী এলাকার সরকারী পুকুর পাড়ের সামন থেকে ধরে নিয়ে আসে। পরে তাকে হোটেল তালাবদ্ধ করে আফজালের হাত পা বেধে তাকে  মধ্যপযুগী কায়দায় অমানষিক নির্যাতন করে হোটেল মালিক সুজন। তখন আফজালের শোর চিৎকার শুনে আশে পাশের লোকজন এগিয়ে আসলে সার্টার খুলে দেয়  সুজন। স্থানীয়দের মাধ্যমে খবর পেয়ে আফজালের আত্মীয় স্বজন তাকে উদ্ধার করে বাড়িতে নিয়ে যায়। গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে তাকে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।





প্রথম পাতা