বানিয়াচঙ্গে দুই সন্তানের জননীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ
তারিখ: ১৩-মার্চ-২০১৮
জাহেদ আলী মামুন ॥

বানিয়াচং উপজেলার কান্দিপাড়া গ্রামে স্বামীর সাথে অভিমান করে চায়না রানী দাস (২৬) নামে এক গৃহবধু গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য সোমবার দুপুরে হবিগঞ্জ সদর আধুনিক হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে। চায়না রানী দাস কান্দিপাড়া গ্রামের রঞ্জন দাসের স্ত্রী। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কান্দিপাড়া গ্রামের রঞ্জন দাসের সাথে একই উপজেলার কাটালিয়া গ্রামের রঞ্জিত দাসের কন্যা চায়না রানী দাসের বিয়ে হয় প্রায় ৫ বছর পুর্বে। বিয়ের তাদের কোলজুড়ে দুইটি সন্তান জন্ম গ্রহন করে। সম্প্রতি তাদের মধ্যে তুচ্ছ ঘটনা নিয়ে পারিবারিক কলহ চলে আসছে। এ নিয়ে তাদের মধ্যে বেশ কয়েকবার ঝগড়া হয় বলেও জানায় স্থানীয় লোকজন। এরই জেরধরে চায়না রানী দাস তার স্বামীর সাথে অভিমান করে রোববার দিবাগত রাতে যে কোন এক সময় ঘরের তীরের সাথে গলায় ফাস দিয়ে আত্মহত্যা করে। পরে ঘটনাটি বানিয়াচং থানা পুলিশকে অবগত করলে বানিয়াচং থানার এসআই সামিউল ইসলামের নেতৃত্বে একদল পুলিশ লাশ উদ্ধার করে মর্গে প্রেরণ করে। এ ব্যাপারে বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোজাম্মেল হক জানান, প্রাথমিক ভাবে ধারণা করা হচ্ছে স্বামীর সাথে ঝগড়ার জেরধরেই অভিমান করে সে আত্মহত্যা করেছে। বিষয়টি পুলিশ তদন্ত করে দেখছে।





প্রথম পাতা