এমপি আবু জাহিরের হস্তক্ষেপ কামনা এলাকাবাসীর ॥ নুরানী বাজারে কর্মচারীকে নির্যাতনের ঘটনায় ৪ গ্রামবাসির প্রতিবাদ সভা
তারিখ: ১৩-জানুয়ারী-২০১৯
আখলাছ আহমেদ প্রিয় ॥

হবিগঞ্জ সদর উপজেলার গোপায়া নুরানী বাজারে হোটেল কর্মচারীকে মালিকের অমানষিক নির্যাতনের ঘটনায় প্রতিবাদ সভা করেছেন ৪ গ্রামবাসী। এতে বিষয়টি নিস্পত্তির লক্ষে হবিগঞ্জ সদর-লাখাই-শায়েস্তাগঞ্জ আসনের সংসদ সদস্য আলহাজ্ব এডভোকেট মোঃ আবু জাহিরের হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন এলাকাবাসী। গতকাল শনিবার সকাল ১১টায় উপজেলার সুলতানশী হাবিলীর মাঠ প্রাঙ্গনে লস্করপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মাহবুবুর রহমান হিরো’র সভাপতিত্বে ও স্থানীয় ২নং ওয়ার্ডের সাবেক ইউপি সদস্য মাহমুদ হাসানের পরিচালনায় এ সভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে শরীফপুর, সুলতানশী, হাতিরথান ও চানপুর গ্রামের বিশিষ্ট মুরুব্বিসহ যুবকবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন। সভায় দীর্ঘ আলোচনায় বিষয়টি নিস্পত্তি না হলে অচিরেই খোয়াই নদীর পূর্ব পাড় (১০ গ্রামবাসী) এলাকাবাসীকে নিয়ে আলোচনা বসবেন এলাকাবাসী। বিষয়টি সুষ্টু সমাধানের লক্ষে এমপি আবু জাহিরের হস্তক্ষেপ কামনা করেন এলাকাবাসী। সভায় লস্করপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান মোঃ আমজাদ আলী, গ্রাম সর্দার আব্দুল মন্নাফ, উপজেলা আওয়ামীলীগ নেতা আব্দুল জলিল, বিএনপি নেতা এডভোকেট মঈনুল হাসান দুলাল, ইউপি সদস্য মোঃ ফুল মিয়া, সাদেক মিয়া, বুরহান উদ্দিন ও আলাউদ্দিন, আব্দুল আছির, তৈয়ব আলীসহ অনেকেই বক্তব্য রাখেন। উল্লেখ্য, গোপায়া নুরানী বাজারের সুজন মিয়ার মালিকানাধীন হোটেল রেস্তোরায় প্রায় ৬ মাস ধরে কাজ করে আসছিল সদর উপজেলার সুলতানশী গ্রামের মঞ্জব আলীর পুত্র আফজাল মিয়া। পরে হোটেল মালিক সুজন মিয়া ৩ মাস ধরে আফজাল মিয়াকে বেতন না দিলে তাদের মধ্যে বাক-বিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে আফজাল দোকান থেকে চলে যায়। পরবর্তীতে এ ঘটনায় সুজন মিয়া ক্ষিপ্ত হয়ে উঠে এবং ওই এলাকার এক ব্যক্তির সহযোগিতায় আফজাল মিয়াকে সুলতানশী এলাকা থেকে জোরপূর্বক গাড়িতে তুলে হোটেলে নিয়ে আসে এবং হোটেল তালাবদ্ধ করে আফজালকে অমানষিক নির্যাতন করে।





শেষ পাতা